• December 4, 2021

এ যেন এক বিশ্ব গ্রামের আদর্শ নিদর্শন

 এ যেন এক বিশ্ব গ্রামের আদর্শ নিদর্শন

নিজস্ব সংবাদদাতা, উত্তর দিনাজপুর : এ যেন এক বিশ্ব গ্রামের আদর্শ নিদর্শন। পৃথিবী থেকে একসাথে করোনা নিরাময়ের পাশাপাশি ভারতের দরিদ্র শিশুদের পড়াশোনার জন্য হাত বাড়িয়ে দিল স্পেনের একটি স্কুল। রায়গঞ্জের আশেপাশের এলাকায় দুঃস্থ শিশু ও সাধারণ মানুষের জন্য শিক্ষার জন্য গতবারের লকডাউনের পর থেকেই কাজ করে চলছে হিতৈষী নামক একটি বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। তাদের কাজ দেখে খুশি হয়ে সূদূর স্পেনের একটি বেসরকারি স্কুল এই উদ্যোগ নিয়েছে।সংস্থার পক্ষে সম্পাদক প্রসেনজিৎ সরকার বলেন,’ দুঃস্থ বাচ্চাদের নিয়ে আমাদের পড়াশোনা করানোর প্রচেষ্টা দেখে লন্ডন কলেজের রিসার্চ এসোসিয়েট প্রিয়ঙ্কন দত্ত এবং তার স্ত্রী জয়িতা চাকী, যিনি পতিরাম বিবেকানন্দ গার্লস হাই স্কুলের শিক্ষিকা , দুজনে স্পেনের একটি স্কুল, যার নাম আই ই এস ভালভার্ডে ডি লুসার্ণা (পিউবলা দি সান্যাব্রিয়া), তার প্রিন্সিপাল এলেনা ফারনান্ডেজ গুটিরেজের সাথে যোগাযোগ করেন। তিনি অত্যন্ত খুশি হন আমাদের গ্রামাঞ্চলের দুঃস্থ শিশুদের পড়াশোনার ব্যবস্থা দেখে।

ওখানকার এডুকেশন ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর আরান্টজা তোরিজোস সিডের সাথে কথা বলে তিনি একটা প্রজেক্ট তৈরি করেন৷ তিনি আমাদের রায়গঞ্জ হিতৈষীর সাথে সহযোগিতায় এখানকার শিশুদের পড়াশোনায় সাহায্য করতে চান৷’ প্রসেনজিৎ বাবু আরও বলেন, ‘তিনি ওখানে একটা ডোনেশন সংগ্রহের ব্যবস্থা করেন। ওই সংগ্রহ বাক্সে যে সমস্ত শিক্ষা সামগ্রী সংগৃহীত হবে, তা এই জুনেই আমাদের এখানে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’ প্রসেনজিৎ বাবুর দাবি, ওই স্কুলের সেক্রেটারি আলেকক্সাড্রা ফ্রান্সেস আন্দ্রেস ভবিষ্যতে আমাদের বাচ্চাদের জন্য আরো অনেক কিছু নিয়ে ভাবছেন৷’ধন্যবাদ জানিয়ে প্রসেনজিৎ বাবু জানান, এই কাজ সুষ্ঠুভাবে করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন প্রিয়ঙ্কন আর জয়িতা। মূলত আমাদের দেশের প্রতি অগাধ ভালোবাসার জন্য তাঁদের এই প্রচেষ্টা। এছাড়া বর্তমানে আমরা দুঃস্থ লোকেদের খাদ্যসামগ্রী দিতে পারছি বিশেষত প্রিয়ঙ্কনের জন্য। এমন ভাবে, একটি দূর দেশের অনুদানের খবর শুনে ভীষণ উৎসাহী সংস্থার সদস্য অভিজিৎ দাস,শাহজাহান আলী,অরিত্র দে, শাহনওয়াজ হুসেন, কৌশিক কর, সুভজিত দাস, বিশ্বজিৎ রাউৎ, শ্রাবনী বিশ্বাস, রচনা বিশ্বাসেরা।

  •  
  •  
  •  
  •  

Related post