• May 18, 2022

“পাকিস্তানের জনগনের হাতেই পাকিস্তানের পরিবর্তন”

 “পাকিস্তানের জনগনের হাতেই পাকিস্তানের পরিবর্তন”

জান্নাতুল মাওয়া ড্রথী

যারা ভাবছে ইমরান খান বিপুল ভোটে আগামী ২০২৩ এর ইলেকশনে ক্ষমতায় আসবে তাদের এই আশা নিয়ে আমি যথেষ্টই সন্দিহান। হ্যা এটা সত্যি জনগন ইমরান খানের পক্ষে। কিন্তু শুধু জনগনের ইচ্ছা আর ভোটের উপরে কি পাকিস্তানের ক্ষমতায় যাওয়া বা আসা নির্ভর করে? ১৯৪৭ থেকে এখন পর্যন্ত যা কিছু শোনা বা প্রত্যেক্ষ করেছে বিশ্ব তাতে স্পষ্ট পাকিস্তানের ক্ষমতার মসনদে কে থাকবে তা নির্ধারণ করে পশ্চিমা মদদপুষ্ট সেনাবাহিনী আর সর্বোচ্চ আদালত। তাই ইমরান খান যদি পশ্চিমা বিশ্বের অর্থাৎ আমেরিকার সামনে মাথা নত না করে তাহলে পাকিস্তানের জনগণের যাই ইচ্ছে থাকুক ক্ষমতায় বসবে তাদের অধিনস্ত শাসক নয়তো আবারও সামরিক শাসন জারি করা হবে এটা স্পষ্ট। এছাড়াও আরেকটা বিষয় খুব স্পষ্ট পাকিস্তানের যে মোল্লাতন্ত্র ধর্মের ধোঁয়া তুলে আমেরিকা কে গালাগালি দেয়, ধর্মনিরপেক্ষ পাকিস্তান গড়ার বিপক্ষে অবস্থান নেয়, নারী শিক্ষা এবং প্রগতির অন্তরায় তাঁরা কিন্তু এই পশ্চিমা মদদ পুষ্ট শাহবাজ শরীফের সরকারের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। তাই ধর্মের ধোঁয়া তুলে বছরের পর বছর পাকিস্তান কে কোন অন্ধকারে পাঠানো হয়েছে তা বোঝা অসম্ভব নয়। তাই আজকের যুগে পাকিস্তানের ইয়াং জেনারেশন এবং সব বয়সের নাগরিকরাই খুব ভালো ভাবেই সেটা বুঝতে পারছে। তাই গতকাল রাতেই রাজপথে নেমে নজিরবিহীন প্রতিবাদ করেছে পাকিস্তানের জনগন। এই প্রথম পাকিস্তানের জনগনের মুখে তাদের সেনাবাহিনী কে টার্গেট করে বলতে শোনা গিয়েছে চৌকিদার চোর হে। অতএব এবারের হিসেবটা যে সহজ হবে না এটাও বোঝা যাচ্ছে। কিন্তু পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর বর্বর ইতিহাস কারো অজানা নয়। ১৯৭১ এর সেই ভয়াবহতা প্রমান করে তাদের গণহত্যা চালানোর চরিত্র।

তাহলে পাকিস্তানের ভাগ্যে পরিবর্তন কি কখনোই হবে না? পাকিস্তানের ভাগ্যে পরিবর্তন করার লড়াই এখন পাকিস্তানের জনগনকেই করতে হবে। এই অন্ধ ধর্মান্ধতা, ভেদাভেদ থেকে বেরিয়ে এই বিশ্বে নিজেদের স্বাধীন রাষ্ট্রের অবস্থান কে শক্ত করতে হবে। নিজেদের অতীতের ভুলগুলো শুধরে নিতে রাষ্ট্র কে পুনরায় ঢেলে সাজাতে হবে। সামরিক বাহিনী কে সবসময়ের জন্য ব্যারাকে ফেরত পাঠাতে হবে। রাষ্ট্রের নিরাপত্তার বাইরে রাজনীতিতে সামরিক হস্তক্ষেপ বন্ধ করাতে হবে পাকিস্তানের জনগণকেই। যদিও এ পথ সহজ নয়, ৭৫ বছরের জঞ্জাল হঠাৎ করেই সহজে সাফ করা যায় না। কিন্তু পাকিস্তানের জনগণের সদিচ্ছা আর সাহসের লড়াই পারে পাকিস্তান কে ঘুরে দাঁড় করাতে নতুন করে।

  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related post